বিক্রয় কি | বিক্রয় কাকে বলে

বিক্রয় কি, বিক্রয় চুক্তি কি এবং বিক্রয়ের সুনির্দিষ্ট সংজ্ঞা কি– সাধারণ জ্ঞানমূলক প্রশ্ন হিসেবে সচরাচর এই প্রশ্নগুলো এসেই থাকে। সেটা হোক চাকরির পরীক্ষা অথবা এডমিশন। মূলত এই কারণেই বিক্রয় সম্পর্কে খুঁটিনাটি বিষয় তুলে ধরব আমরা আমাদের আজকের নিবন্ধনটিতে। তাহলে আসুন জেনে নেওয়া যাক– বিক্রয়ের সংজ্ঞা এবং এ-সম্পর্কিত বিষয়াবলী সম্পর্কে এ টু জেড। 

বিক্রয় কি

আরও পড়ুনঃ ক্রেতা ভ্যালু কি

বিক্রয় কি?

বিক্রয় হলো একটি ব্যবসায়িক প্রক্রিয়া, যেখানে একটি সামগ্রিক পণ্য অথবা সেবা গ্রাহকদের কাছে মূল্য গ্রহণের বিনিময়ে বেচে দেওয়া হয়। এক কথায় বিক্রয় হলো– ব্যবসার একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। 

বিক্রয় কাকে বলে?

ক্রেতাদের প্রয়োজনীয় বা সম্ভাব্য কোন পণ্য বেচে দেওয়ার উদ্দেশ্যে তাদের নিকট ওই পণ্য সম্পর্কে বিস্তারিত জানিয়ে এবং টাকার বিনিময়ে সেটা কিনে নেওয়ার জন্য পরোচিত করাকে বিক্রয় বলে। কেননা বিক্রয় হচ্ছে কোন পণ্য সেবা বা সম্পত্তি প্রতিপ্রাপ্ত করার জন্য অন্যদের কাছে অর্থের লেনদেন বা টাকা আদান-প্রদানের প্রক্রিয়া, যেটা প্রায় প্রতিষ্ঠান বা ব্যক্তির লাভের জন্য সম্পাদন করা হয়। বিক্রয় প্রক্রিয়াকে স্বাভাবিকভাবে মালিকের পণ্য বা সেবা অন্যকে বিতরণ করার একটি প্রক্রিয়াও বলা চলে। তবে এর বিনিময়ে গ্রহণ করা হয় একটি সুনির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ। 

বিক্রয়ের সুনির্দিষ্ট সংজ্ঞা কি?

বিক্রয়ের সুনির্দিষ্ট সংজ্ঞা হলো – পণ্য, সেবা, সম্পত্তি বা অন্য কোন সামগ্রি বরাবরের জন্য অন্যত্র হস্তান্তরের উদ্দেশ্যে আর্থিক লেনদেন প্রক্রিয়া সম্পাদন। যেখানে একজন সরবরাহকারী বা বিক্রেতা তার কাছে থাকা নিজস্ব জিনিসটি একটি নির্ধারিত মূল্যে অন্যের কাছে হস্তান্তর করে এবং সুনির্দিষ্ট শর্তাদী নির্ধারণ করে একটি চুক্তি গঠন করার মাধ্যমে বরাবরের মতো নিজস্ব সেই জিনিসটি অন্যকে দিয়ে দেয় অর্থাৎ অর্থ নেওয়ার মাধ্যমে সেবা প্রদান করে। 

এখন বিষয় হলো– বিক্রয় মূলত কোন কোন মাধ্যমে করা হয় এবং বিক্রয়ের উপাদান গুলো কি কি। সেই সাথে এই বিক্রয় প্রক্রিয়ার গুরুত্বই বা কি! এ প্রশ্নের উত্তরের জন্য আর্টিকেলের পরবর্তী অংশটুকু পড়ুন। 

আরও পড়ুনঃ লক্ষ কি

বিক্রয় করার মাধ্যম

আলোচনার এ পর্যায়ে আমরা যে যেভাবে পণ্য বিক্রয় করা যায় সেই মাধ্যমগুলো তুলে ধরবো। দেখুন ইতিমধ্যে আপনারা আমাদের আলোচনা থেকে এটা বুঝতে নিশ্চয়ই সক্ষম হয়েছেন যে – নিজের কোন জিনিস অন্যকে বরাবরের মতো দিয়ে দেওয়া এবং তার বিনিময়ে একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ গ্রহণ করাটাই হচ্ছে বিক্রয় প্রক্রিয়া। আর এই বিক্রয় কার্যকলাপ মূলত নিম্ন বর্ণিত মাধ্যমে সম্পাদন করা হয়ে থাকে। যথা–

  • অনলাইন যোগাযোগ মাধ্যম
  • সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম
  • নৌ পথ যোগাযোগ মাধ্যম
  • সড়ক পথ যোগাযোগ মাধ্যম
  • আকাশ পথ যোগাযোগ মাধ্যম
  • মৌখিক যোগাযোগ মাধ্যম ইত্যাদি ইত্যাদি।

আপনি যদি অনলাইন বা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম সম্পর্কে অল্পস্বল্প জেনে থাকেন তাহলে এটাও জানবেন যে– বর্তমানে অনলাইনে বিভিন্ন গ্রুপ ওয়েবসাইট এবং ফেসবুক পেজ রয়েছে যেখান থেকে প্রয়োজনীয় সকল পণ্য খুব সহজেই অনলাইনে অর্ডার করার মাধ্যমে কেনা যায়। 

আর ঐ সকল পণ্যগুলো কেনার জন্য কখনো কখনো এডভান্স টাকা পে করতে হয় আবার কখনো কখনো পণ্যগুলো হাতে পাওয়ার পরবর্তীতে টাকা পে করার সুযোগ থাকে। অন্যদিকে নৌপথ, রেলপথ, সড়ক পথ, আকাশ পথ যোগাযোগ মাধ্যমেও মূলত দেশ থেকে দেশান্তরে বিভিন্ন পণ্য স্থানান্তর করা হয় বিক্রয় করার উদ্দেশ্যে। এখন আসুন জেনে নেওয়া যাক বিক্রয়ের উপাদান গুলো মূলত কি কি!

বিক্রয়ের উপাদান কি কি

বিক্রয়ের মূলত সুনির্দিষ্ট উপাদান বলা সম্ভব নয়। কেননা বিক্রয়ের উপাদান বা বিপণন এর প্রক্রিয়া অনেকগুলো বিষয়ের উপর নির্ভর করে। যেমন–

  • কাস্টমার
  • পণ্য বা সেবা
  • বিপনন ও প্রচার
  • মূল্য নির্ধারণ
  • কাস্টমার দ্বারা প্রাপ্তি প্রক্রিয়া

আরও পড়ুনঃ গো খাদ্য কি এবং সাধারণ জ্ঞানমূলক প্রশ্ন

বিক্রয়ের গুরুত্ব

ক্রয় বিক্রয় শব্দ দুটি পারস্পরিক। মূলত ক্রয় বিক্রয় বলতে কোন ব্যক্তি অন্য কোন ব্যক্তি বা সত্তার কাছে কোন পণ্যের মালিকানা হাত বদল করার ঘটনাটিকে বোঝায়। অতএব এই বিষয়ের উপর ভিত্তি করে বলা যায় বিক্রয়ের গুরুত্ব অনেকটাই তাৎপর্যপূর্ণ। কেননা ক্রয় বিক্রয়ের মাধ্যমেই অর্থ উপার্জন করা যায়। আর আমরা এটা সবাই জানি একজন মানুষকে ভালোভাবে বাঁচার জন্য টাকার প্রয়োজনীয়তা ৯৫ শতাংশ। 

আর বর্তমানে মোটা অংকের টাকা কামানোর জন্য অন্যতম সেরা মাধ্যমগুলোর মধ্যে একটি হচ্ছে ব্যবসা। সেটা হোক অনলাইন বিজনেস অথবা অফলাইন। একজন মানুষগুলো তো সামান্য টাকা ইনভেস্ট করার মাধ্যমে ব্যবসা করে লাখপতি এবং লাখো কোটি থেকে কোটিপতিও হতে পারেন। আর এই সমস্ত প্রক্রিয়াটি ক্রয় বিক্রয়ের উপর নির্ভর করেই সম্পাদিত হয়। 

তো পাঠক বন্ধুরা, আশা করি আমাদের আলোচনাটি থেকে বিক্রয় কাকে বলে এবং বিক্রয় জিনিসটা কি এটা আপনাদের কাছে সুস্পষ্ট। এখন আসুন আলোচনার একদম শেষ পর্যায়ে জেনে নেই বিক্রয় বৃদ্ধি করতে অর্থাৎ ব্যবসার প্রসার ঘটাতে আপনার টার্গেটকৃত পণ্যটি নির্ধারিত মূল্যে বিক্রি করার জন্য মূলত কি কি করা জরুরী!

প্রথমত: আপনার টার্গেটকৃত পণ্যের মান নির্ধারণ করা জরুরী

দ্বিতীয়তঃ আপনি যে পণ্যটি বিক্রয়ের জন্য নির্ধারণ করেছেন সেটার উপকারিতা অপকারিতা অর্থাৎ ভ্যালু নির্ধারণ করা জরুরী

তৃতীয়ত: আপনার পণ্যটি কতটা মানসম্মত এবং কেন ক্রেতারা আপনার পণ্যটি কিনবে সে সম্পর্কে আশ্বস্ত করা এবং বিশেষ অর্জন করা জরুরী।

আপনি যদি অনলাইন মার্কেটিং সম্পর্কে জানেন অথবা ছোটখাটো ব্যবসায়ীদের দিকে নজর রাখেন তাহলে এই বিষয়টি অনেকটাই প্র্যাকটিক্যালি বুঝতে সক্ষম হবেন। 

আর হ্যাঁ, ব্যবসায় লাভবান হতে এবং বিক্রয়ের পরিসীমা কে বৃদ্ধি করতে ক্রেতাদের পণ্য ক্রয় করতে সহায়তা করা জরুরী, বাজারজাতকরণ তথ্য সরবরাহ করা জরুরী, অন্যের এক্সপায়ার এবং উৎপাদন ডেট সম্পর্কে ক্রেতাদেরকে অবগত করাও জরুরী।

কেননা এর মাধ্যমে আপনি একজন রেগুলার কাস্টমার কাউন্ট করতে পারবেন। কারণ সচরাচর মানুষ যে স্থান থেকে ভালো সার্ভিস পেয়ে থাকে ভালো সেবা পেয়ে থাকে সেখানেই বারবার যাওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করে। 

তো পাঠক বন্ধুরা, ব্যবসা সম্পর্কিত বিষয় নিয়ে আলোচনা করা যাবে অন্য কোন দিন। তবে বিক্রয় কি এবং বিক্রয় কাকে বলে এ সম্পর্কে যদি আমাদের কাছে আরো কোন প্রশ্ন থেকে থাকে তাহলে কমেন্ট করে জানান। সবাই ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন আল্লাহ হাফেজ। 

আরও দেখুনঃ

All Easy Google News
Setu
Setu

Assalamu Alaikum, I am Setu. An ordinary girl studying in honors. Currently engaged in the world of technology. I am very passionate about blogging and writing. I like to learn and share something new😇

Articles: 134

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *