শরীর দুর্বল হলে কি কি সমস্যা হয় (লক্ষণ, কারণ ও প্রতিকার)

শরীর দুর্বল হলে কি কি সমস্যা হয়, শারীরিক দুর্বলতা থাকলে কোন কোন লক্ষণ প্রকাশ পায়! হঠাৎ শরীর দুর্বল হলে করণীয় কি! এ সম্পর্কে জেনে রাখা খুবই জরুরী। কেননা সুস্থ শরীর সুন্দর মনের অধিকারী। শরীর এবং মন একে অপরের পরিপূরক।

আর শারীরিক অসুস্থতা বা শারীরিক দুর্বলতা যে কতটা অস্বস্তিকর সেটা শুধুমাত্র ওই ব্যক্তি অনুভব করতে পারে যে বর্তমানে এই সমস্যায় ভুগছেন। অনেকেই রয়েছেন শারীরিক দুর্বলতায় ভুগছেন কিন্তু জানেন না যে আপনার কি হয়েছে।

শরীর দুর্বল হলে কি কি সমস্যা হয়

তাই আজকের আলোচনায়— শরীর দুর্বল হলে কি কি সমস্যা হয় সে ব্যাপারে আলোচনা করব। পাশাপাশি শরীর দুর্বল হলে কি খেতে হয়, হটাৎ শরীর দুর্বল হলে করণীয়, শরীর দুর্বল থেকে মুক্তির উপায় সমূহ সম্পর্কে জানাবো বিস্তারিত।

আরও পড়ুনঃ লিভার ভালো রাখার ব্যায়ামসমূহ সম্পর্কে A টু Z

শরীর দুর্বল হলে কি কি সমস্যা হয়

শরীর দুর্বল হলে সমস্যা হিসেবে এক এক শরীরে এক এক রকমের উপসর্গ দেখা দেয়। মূলত অসুস্থতার ধরন এর ওপর ভিত্তি করে শারীরিক দুর্বলতা গুলো প্রকাশ পায়। আর তাই ওই সকল বিষয় বিবেচনা করে আমরা আলোচনার এ পর্যায়ে তুলে ধরছি শরীর দুর্বল হলে কি কি সমস্যা হয় সেগুলো। যথা –

  • শরীর দুর্বল হলে মন মেজাজ খিটখিটে হয়ে যায়
  • শরীর অতিরিক্ত ক্লান্ত হয়ে পড়ে
  • কোন কাজের প্রতি আগ্রহ থাকে না
  • একটুতেই হাঁপিয়ে পড়ার প্রবণতা বেড়ে যায়
  • অতিরিক্ত গরম লাগে কিংবা অতিরিক্ত ঠান্ডা লাগে যেটা আবহাওয়ার সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়।
  • পেট ব্যথা করে
  • হজম শক্তি কমে যায়
  • মাথা ঘোরায়
  • ওজন অতিরিক্ত কমে যায়
  • রাতে ভালো ঘুম হয় না
  • কিডনি ও লিভার এর কার্যক্ষমতা কমে যায়
  • পাকস্থলীর কার্যক্ষমতা ধীরে ধীরে কমতে থাকে
  • অতিরিক্ত পানি পিপাসা পায়
  • হাড়ে ব্যথা অনুভব হয়
  • হাত পা কামড়ায় অর্থাৎ হাত পায়ে অস্বস্তিকর অনুভূতি সৃষ্টি হয়
  • অতিরিক্ত চিন্তা গ্রাস করে ফেলে
  • অতিরিক্ত প্রস্রাব হয়
  • চুল পড়ার মত সমস্যা দেখা দেয়
  • মুখে অধিক পরিমাণে পিম্পল এর আবির্ভাব ঘটে
  • চুলকানি জাতীয় রোগ গুলো হয়ে থাকে, বিশেষ করে এলার্জি
  • অল্পতেই সর্দি কাশি লেগে যায় এবং
  • যে কোন কাজে একঘেয়েমি ভাব চলে আসে কোন কিছুতেই মন বসে না অর্থাৎ মনোযোগ ক্ষমতা কমে যায়।

 হঠাৎ শরীর দুর্বল হলে করণীয়

হঠাৎ করে যদি আপনার শরীর অতিরিক্ত দুর্বল হয়ে পড়ে সেক্ষেত্রে আপনাকে যে কাজগুলো করতে হবে। যথা –

  • সঙ্গে সঙ্গে এক গ্লাস ঠান্ডা পানি পান করতে হবে
  • এক গ্লাস গরম দুধ খেতে হবে
  • কিছুটা রেস্ট নিতে হবে। এর জন্য আধা ঘন্টা বা কুড়ি মিনিট শুয়ে থাকতে পারেন বা কিছু সময়ের জন্য ভাতঘুম দিতে পারেন। 

আর আপনার শরীর যদি দীর্ঘ সময় ধরে দুর্বল থাকে সেক্ষেত্রে করণীয় কাজগুলো হবে–

  • নিয়মিত পুষ্টি সমৃদ্ধ খাবার খাওয়া
  • প্রতিদিন সকাল এবং রাতে হালকা-পাতলা হলেও ব্যায়াম করা
  • প্রচুর পরিমাণে পানি পান করা
  • রাতে প্রতিদিন এক গ্লাস দুধ পান করা
  • শরীর এর দুর্বলতা কাটাতে ভিটামিন জাতীয় ঔষধ খাওয়া
  • ডাক্তারের শরণাপন্ন হওয়া এবং তাদের নির্দেশনাবলী মেনে চলা।

সেই সাথে মনকে প্রফুল্ল রাখা এবং হাসিখুশি থাকাও শারীরিক দুর্বলতা কাটানোর অন্যতম প্রন্থা হিসেবে কাজ করে। তাই হঠাৎ শরীর দুর্বল হলে অথবা দীর্ঘ সময় ধরে শরীর দুর্বল থাকলে এই বিষয়গুলো মেনে চলার চেষ্টা করুন। 

আরও পড়ুনঃ-লিভার রোগীর খাদ্য তালিকায় কি কি খাবার রাখা যাবে

শরীর দুর্বল হলে কি খেতে হয়?

শরীর দুর্বল হলে ঐ সকল খাবার খাওয়া জরুরী যে খাবারগুলো শরীরে প্রচুর পরিমাণে শক্তি যোগাবে। কেননা শরীর দুর্বল হলে সঠিক পুষ্টি ধারণ করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ঠিক এ কারণে শরীর দুর্বল হলে আপনার খাবারের পরিমাণ, গুণমান এবং পুষ্টির সম্পর্কে সতর্ক থাকা অতীব জরুরী হয়ে পড়ে। তবে নিম্নলিখিত কিছু খাবার শারীরিক দুর্বলতা খুব দ্রুত কাটাতে সাহায্য করে থাকে। যথা:-

✓ প্রোটিন স্রোতস্বরূপ মাংস, মাছ, ডাল, দুধ এবং ডেয়ারি প্রোডাক্টস। কেননা প্রোটিন খাদ্য সম্প্রসারণ বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে এবং শরীরের স্থায়িত্ব শক্তি বজায় রাখতে সাহায্য করে।

✓ সবুজ শাক সবজি এবং ফল: লাউ, স্পিনাচ, কলার্ড গ্রীন, ব্রোকলি, ক্যারাট, পটল, সবুজ শাকসবজি ইত্যাদি। এই খাবারে পৌষ্টিক ভিটামিন, মিনারল, ফাইবার এবং প্রয়োজনীয় পুষ্টি থাকে, যা শরীরের সম্প্রসারণ এবং শক্তি বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে।

✓ সুস্থ কার্বোহাইড্রেট: পৌষ্টিক কার্বোহাইড্রেট যেমন পৌষ্টিক অটা, ব্রাউন রাইস, কুইনোয়া, ওটমিল, পাস্তা ইত্যাদি খেতে হবে। কারণ কার্বোহাইড্রেট শরীরে শক্তি প্রদান করতে সাহায্য করতে পারে।

✓সুস্থ ফ্যাট: সুস্থ ফ্যাট যেমন– অলিভ অয়েল, কোকোনাট অয়েল, অভকাডো, নাটস, শসা তেল থাকতে হবে। এই তেলে রয়েছে ভিটামিন এ এবং ডি, যা পুষ্টি সম্প্রসারণ এবং শরীরের স্থায়িত্ব বৃদ্ধিতে সহায়ক।

আর হ্যাঁ, শারীরিক দুর্বলতা কাটাতে ভিটামিন সি অধিক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। তাই ভিটামিন সি সমৃদ্ধ ফলমূল বা খাবার গুলো অধিক বেশি পরিমাণে খাওয়ার চেষ্টা করবেন। যেমন–

  • আঙ্গুর ফল
  • কমলালেবু
  • কাঁচা মরিচ
  • লেটুস পাতা
  • লেবু প্রভৃতি।

শরীর দুর্বল হলে কি ঔষধ খেতে হবে?

শরীর দুর্বল হলে কি ঔষধ খেতে হবে এটা খুবই কমন একটি প্রশ্ন বলা চলে। তবে ঔষধ খাওয়ার পূর্বে আপনি যদি আমাদের উল্লেখিত টিপসগুলো ফলো করেন তাহলে আপনার শারীরিক দুর্বলতা কেটে যাবে বলে আশা করা যায়। 

তবুও যদি আপনি ওষুধ হিসেবে কিছু খেতে চান তাহলে শারীরিক দুর্বলতার কারণগুলো প্রথমত চিহ্নিত করতে হবে। যদি আপনার শরীরে কোন রোগ বাসা বেধে থাকে তাহলে সে ক্ষেত্রে ভিন্ন মাত্রায় ভিন্ন ভিন্ন ঔষধ খেতে হবে। আর যদি শুধুমাত্র শারীরিক দুর্বলতা থেকে থাকে আপনার তাহলে ভিটামিন সি ভিটামিন ডি এ সকল পুষ্টির চাহিদা পূরণে তেমন ধরনের ওষুধই নির্বাচন করতে হবে।

এক্ষেত্রে আমরা সাজেস্ট করব আন্দাজ এর ওপর ভিত্তি করে কোন ওষুধ না খেয়ে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হবার এবং তাদের নির্দেশিত ঔষধ সঠিক মাত্রায় নিয়ম মেনে খাওয়ার। আশা করা যায় আপনি দ্রুত শারীরিক দুর্বলতা কাটিয়ে সুস্থ জীবন এ ফিরে আসতে পারবেন।

আরও পড়ুনঃ চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ডাক্তারদের তালিকা (নিউরোলজি, গাইনি ও কিডনি বিশেষজ্ঞ)

শরীর দুর্বল থেকে মুক্তির উপায়

শরীর দুর্বল থেকে মুক্তির উপায় হচ্ছে পুষ্টি সমৃদ্ধ খাবার নিয়মিত খাওয়া, প্রতিদিন সঠিক মাত্রায় সঠিক পদ্ধতিতে শরীর চর্চা করা এবং মনকে সবসময় প্রফুল্ল রাখা। শরীর এবং মন একে অপরের পরিপূরক। তাই আপনি যদি শরীরকে ভালো রাখতে চান তাহলে অবশ্যই মন কেউ ভালো রাখতে হবে এবং মনের দিক থেকে আপনাকে অনেক বেশি স্ট্রং হতে হবে। 

এতোটুকু শরীর খারাপের যদি আপনি অনেক কিছু চিন্তা ভাবনা করেন এবং আপনার মন খারাপ হয় সেক্ষেত্রে শারীরিক দুর্বলতা আপনাকে আরো বেশি গ্রাস করে ফেলবে। তাই সবসময় শরীর দুর্বল থেকে মুক্তির উপায় হিসেবে এই টিপসটি মাথায় রাখবেন। 

শরীর দুর্বল কেন হয়?

শরীর দুর্বল হলে কি কি সমস্যা হয়, শরীর দুর্বল হলে কি খেতে হয়, শরীর দুর্বল হলে কি ওষুধ খেতে হবে এবং শরীর দুর্বল থেকে মুক্তির উপায় পাশাপাশি হঠাৎ শরীর দুর্বল হয়ে করণীয় কি এইসব সম্পর্কে আমরা আলোচনা করেছি ইতিমধ্যে। কিন্তু কথা হচ্ছে শরীর মূলত কেন দুর্বল হয় অর্থাৎ শারীরিক দুর্বলতার কারণ কি কি! এ কারণে আর্টিকেলের শেষ পর্যায়ে পরবর্তী অংশটুকু পড়ার মাধ্যমে জেনে নিন শরীর দুর্বল হওয়ার কারণসমূহ–

  • পানি শূন্যতা
  • পুষ্টির অভাব
  • অস্বাস্থ্যকর লাইফ স্টাইল
  • অনিয়মিত ব্যায়াম
  • ভিটামিন ও খনিজের ঘাটতি
  • সোডিয়াম এবং পটাশিয়ামের কোনটি
  • শ্বাসনালী অথবা মূত্রনালীর সংক্রমণ
  • শরীরের ভিতর দীর্ঘস্থায়ী কোন রোগের বসবাস
  • থাইরয়েডের সমস্যা
  • শ্বাসকষ্ট
  • স্টোক
  • অনিয়মিত জ্বর সহ প্রভৃতি।

তো সুপ্রিয় পাঠক বন্ধুরা, শরীর দুর্বল হলে কি কি সমস্যা হয় এবং শরীরের দুর্বলতা কাটানোর উপায় সমূহ সম্পর্কে আলোচনার সমাপ্তি টানছি এখানেই। আশা করি শরীর দুর্বল হলে কি কি সমস্যা হয় এবং শরীর দুর্বলতা কাটানোর ক্ষেত্রে করণীয় কাজগুলো আপনাদের প্রাথমিক জীবনে অনেক বেশি কাজে আসবে।

তো সবাই ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন পরবর্তীতে খুব শীঘ্রই আপনাদের সাথে আবারো নতুন টপিকের নতুন কোন আলোচনায় কথা হবে। সবাইকে আল্লাহ হাফেজ।

আরও দেখুনঃ

All Easy Google News
Setu
Setu

Assalamu Alaikum, I am Setu. An ordinary girl studying in honors. Currently engaged in the world of technology. I am very passionate about blogging and writing. I like to learn and share something new😇

Articles: 132

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *